ডেভিড মিলার আউট ছিলো না সেটি ছিলো ছয় ; জুম করলেই স্পস্ট বুঝা যায়- একি ফাঁস করলেন এবিডি ভিলিয়ার্স!


ফাইনাল ম্যাচে আম্পায়ারদের এমন সিদ্ধান্ত মেনে নেওয়ার মতো নয়। শেষ ওভারে ডেভিড মিলারের ক্যাচটা একটু জুম করলে দেখা যায় সেটি ছিল সূর্যকুমারের পা বাউন্ডারি লাইনে স্পর্শ করেছিল। তবে আম্পায়ার সেটিকে আউট ঘোষণা করে।

সঠিক অ্যাঙ্গেলের ভিডিও ফুটেজ দেখায়নি ফাইনাল খেলায়। তার আগেই আউট ঘোষণা করা হয়। সেটি আউট না হয়ে ছয় রান হলে হয়তো বা ম্যাচের ফলাফল দক্ষিণ আফ্রিকার পক্ষে যেত। এ বার ভারতের বিপক্ষেই এ কেমন অভিযোগ আনল সাবেক ক্রিকেটার এবি ডিভিলিয়ার্স।

আরো পড়ুন:

সালাউদ্দিনকে বাংলাদেশ দলের প্রধান কোচ করতে ব্যবস্থা নিবেন নাফিসা কামাল!

প্রথমবার ফাইনালে উঠে বিশ্বকাপটা প্রায় নিজেদের করে ফেলেছিল দক্ষিণ আফ্রিকা। শেষে ৩০ বলে ৩২ রান করতে না পেরে হলো না স্বপ্নপূরণ। তবে ম্যাচে আশা টিকে ছিল শেষ ওভার পর্যন্ত।

২০ তম ওভারের প্রথম বলে যখন ক্যাচ আউট হয় ডেভিড মিলার তখন সব স্বপ্ন শেষ হয়ে যায় প্রোটিয়াদের। তবে এবার এবি ডে ভিলিয়ার্স পাশ করল গোপন তথ্য।

তিনি বলেন, আম্পায়াররা ম্যাচটি ভারতকে জিতিয়ে দিয়েছে৷ শেষ ওভারে মিলার যখন ঘুড়িয়ে মারল তখন একেবারে বাউন্ডারি লাইনে গিয়ে ক্যাচটা নেন সূর্যকুমার। ক্যাচটা যখন থার্ড আম্পায়ার চেক করছিল তখনই আমার সন্দেহ হয়েছে।

তারা এমন অ্যাঙ্গেল থেকে দেখছিল যাতে স্পষ্ট বোঝা যাচ্ছিল না। সূর্যকুমারের পা বাউন্ডারির লাইন স্পর্শ করেছে কি না, ফুটেজ টি আমি পরে জুম করে দেখেছি।

এটা স্পষ্ট নট আউট এবং ছয় হওয়ার কথা ছিল। কারণ ফিল্ডারের পা বাউন্ডারি লাইনে স্পর্শ করেছে। তবে আম্পায়ারদের কাছে সেটি আউট ছিল এটা আউট না হয়ে ছয় হলে ফলাফল ভিন্ন কিছু হতে পারত।

একটি ভুল সিদ্ধান্ত আমাদের বিশ্বকাপ থেকে বঞ্চিত করল। ভারতের সাথে ম্যাচ হলে এ রকম কিছু হবে আগেই অনুমান করে রেখেছিলাম।

Full Video