সাপের কামড়ে গৃহবধূর মৃত্যু, এলাকায় রাসেলস ভাইপারের আতঙ্ক!

আমতলী উপজেলার গুলিশাখালী ইউনিয়নের মধ্য আঙ্গুলকাটা গ্রামে মঙ্গলবার সকালে সাপের কামড়ে রেজিমন বেগম (৫০) নামে এক নারীর মৃত্যু হয়েছে। রেজিমন ওই গ্রামের আর্শ্বেদ হাওলাদারের স্ত্রী।

ধারণা করা হচ্ছে রাসেলস ভাইপার সাপের ছোবলে ওই নারীর মৃত্যু হয়। এঘটনার পরপরই ওই গ্রাম জুড়ে এখন রাসেল ভাইপার সাপের আতঙ্কে ভুগছে গ্রামবাসী।

নিহতের পরিবার সূত্রে জানা গেছে, মঙ্গলবার খুব ভোরে ফজরের নামাজ আদায়ের জন্য আমতলী উপজেলার গুলিশাখালী ইউনিয়নের আর্শ্বেদ হাওলাদারের স্ত্রী গৃহবধূ রেজিমন বেগম (৫০) পুকুর ঘাটে যান ওজু করার জন্য।

ওজু শেষে পা ধোয়ার সময় আকস্মিক রেজিমনের পায়ে সাপে কামড় দেয়। এসময় তার ডাক চিৎকার শুনে স্বজনরা ছুটে গিয়ে দেখেন রেজিনার পায়ে সাপের কামড়ের দাগ।

এবং মাটিতে শুয়ে গড়াগড়ি দিচ্ছে। এর কিছুক্ষণের মধ্যেই রেজিনা বেগম অজ্ঞান হয়ে পরেন। তাৎক্ষণিক স্বজনরা তাকে পটুয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে গেলে হাসপাতালের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক তাকে মৃত্যু ঘোষণা করেন।

রেজিমন বেগমের স্বামী আর্শ্বেদ হাওলাদার বলেন, ফজরের নামাজ পড়ার জন্য আমার স্ত্রী ঘাটে যান ওজু করার জন্য এসময় তাকে সাপে কামড় দেয়।

তার ডাক চিৎকার শুনে আমরা পরিবারের লোকজন ছুটে গিয়ে দেখি সে মাটিতে শুয়ে গড়াগড়ি দিচ্ছে। তাৎক্ষণিক তাকে স্থানীয় কবিরাজ এনে প্রাথমিক চিকিৎসা করে পরে আমরা পটুয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসকরা তাকে মৃত্যু ঘোষণা করেন।

খুবই অল্প সময়ে তার মৃত্যু হয়েছে। ধারণা করা হচ্ছে তাকে বিষাক্ত রাসেলস ভাইপার সাপে কামড় দিয়েছে। মধ্য আঙ্গুলকাটা গ্রামে বাসিন্দা মো. আব্দুস ছোবান বলেন, সাপের কামরে এক গৃহবধূর মৃত্যুর পর এই গ্রামে এখন রাসেল ভাইপার সাপের আতঙ্ক বিরাজ করছে। সন্ধ্যার পর গ্রামের কোন লোকজন এখন আর ঘরের বাইরে থাকে না।

চারিদিকে যখন বিষধর সাপ রাসেলস ভাইপারের আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ছে ঠিক এমন মুহূর্তে ঘটনাটি আরো বেশি ভাবিয়ে তুলছে বলে এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়।

আমতলী উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. চিন্ময় হাওলাদার বলেন, এই সময়ে একটু সাপের আতঙ্ক বেশী থাকে তাই সকলকে সাবধানে চলাফেরা করতে হবে।

Full Video